বেতার উপস্থাপনা

একজন বেতার উপস্থাপক, যে কোনও বেতার অনুষ্ঠানের সফলতার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকেন। উপস্থাপকের মূল কাজ হচ্ছে, শ্রোতার সাথে যোগাযোগ স্থাপন। শ্রোতাকে অনুষ্ঠানের সাথে ধরে রাখা ও আকৃষ্ট করা। কাজটি কঠিন সন্দেহ নেই, তবে অসম্ভব মোটেই না।

বেতার উপস্থাপনার ক্ষেত্রে, উপস্থাপনার ভাষা হওয়া উচিত সহজ – যা বলছেন সেটা মানুষকে বলার মধ্য দিয়ে বুঝাতে হবে। যে কোনও অনুষ্ঠান সফলভাবে উপস্থাপন করতে হলে অনুষ্ঠানের বিষয় সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা থাকা, সহজ ভাষায় সাবলীল ভঙ্গিতে বার্তা শ্রোতার কাছে পৌঁছে দেওয়ার দক্ষতা থাকতে হবে। বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে , “মানুষের মস্তিষ্ক ২৮ সেকেন্ডের মত তথ্য একসঙ্গে নিতে পারে। কাজেই খুব লম্বা বাক্য, কঠিন শব্দ ব্যবহার করলে, বাক্যের শুরু ও শেষ কোথায়? – সে সম্পর্কে মানুষ খেই হারিয়ে ফেলতে পারে”।  সুতরাং শ্রোতার দ্রুত বোধগম্যতার জন্য প্রচলিত এবং সহজবোধ্য শব্দের ব্যবহার বেতার উপস্থাপনার ক্ষেত্রে প্রাধান্য পেয়ে থাকে।

এফ এম ৮৮.৮ মেগা হার্জ, বাংলাদেশ বেতারে, কাজ করতে গিয়ে দেখেছি, শিল্পী হিসেবে উপস্থাপনায় সাফল্য অর্জনের জন্য একজন বেতার উপস্থাপকের নিম্নবর্ণিত গুণগুলো থাকা খুবই প্রয়োজন:

১। উপস্থাপক তার কাজকে ভালবাসবেন, শব্দের উচ্চারণ সঠিকভাবে করবেন এবং নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস থাকবে।  যে বিষয় নিয়ে কথা বলবেন, সে বিষয় সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে এবং অবশ্যই মাইক্রোফোনের ব্যবহার সম্পর্কে পূর্বধারণা আবশ্যক।

২। উপস্থাপক কথা বলার সময় তিনটি বিষয়ে দক্ষতার পরিচয় দিবেন। এগুলো হলো: তিনি কি বলছেন? কেন বলছেন? এবং কাকে বলছেন? পান্ডুলিপি পাঠে, পড়ার মত করে না পড়ে, বরং বলার মত করে পড়বেন। তিনি এমনভাবে শ্রোতার/অংশীজনের সাথে কথা বলবেন, যেন মনে হয় একটি গল্প বলছেন।

৩। প্রমিত উচ্চারণ, বাচন ভঙ্গী, প্রক্ষেপণ যথাযথ হবার পাশাপাশি উপস্থাপককে শ্রোতা/ অংশীজনদের টেস্ট (রুচি / আগ্রহ) সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে। শ্রোতার সাথে সম্পর্ক চলমান রাখার জন্য বক্তব্য উপস্থাপনে সাবলীল হতে হবে এবং কোথায় বক্তব্য থামাতে হবে সে সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা থাকতে হবে।

৪। সর্বশেষ বলব, প্রতিটি উপস্থাপকের একটি স্বপ্ন থাকতে হবে। শিখার আগ্রহ থাকতে হবে। অন্যদের উপদেশ গ্রহণের মত মানসিকতা থাকতে হবে।

এফ এম ৮৮.৮ মেগা হার্জের স্টুডিওতে কর্মরত কয়েকজন উপস্থাপক।

উপরের গুণগুলো একজন উপস্থাপকের থাকলে এবং এই গুণগুলোর চর্চা অব্যাহত রাখলে অবশ্যই সময়ের আবর্তনে তিনি  দেশের সেরা একজন বাচিক শিল্পী হিসেবে খ্যাতি অর্জন করবেন।  এফএম ৮৮.৮ মেগা হার্জে আমরা এইটি বিশ্বাস করি। তবে, একই সাথে আমরা এটিও মনে করি, একজন ভাল উপস্থাপক হবার জন্যে এবং নিজের অস্তিত্ব মিডিয়া ইন্ডাস্ট্রিতে বজায় রাখার জন্য উপরের গুনগুলো চর্চার পাশাপাশি মোটের উপর চারটি বৈশিষ্ট্য আপনার থাকতে হবে। বিভিন্নজন বিভিন্নভাবে ব্যাখা করতে পারেন, তবে  কাজের অভিজ্ঞতায় আমরা এই চারটি বৈশিষ্ট্যকে নিম্নের ধারাবাহিকে সাঁজিয়েছি:

ক) প্রথমত উপস্থাপক তার উপর অর্পিত দায়িত্ব পালনে অত্যন্ত পারদর্শী। যথার্থ উচ্চারণ, শব্দ চয়ণ, আবেগ এবং গতির ব্যবহারে মুন্সিয়ানার পরিচয় দিয়ে থাকেন।

খ) একজন ভাল উপস্থাপক তার কাজের প্রতি সততার পরিচয় দিয়ে থাকেন এবং কাজের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকেন। একটি ভাল কাজ নির্মানের জন্য কতটুকু শ্রম প্রয়োজন তা তিনি জানেন। শ্রমের ব্যবহারে কার্পন্য করেন না।

গ) একজন ভাল উপস্থাপক সব সময়ই সময় নিষ্ঠ হয়ে থাকেন। ভোর সাতটা এর অর্থ সকাল ছয়টা বেজে ঊনষাট মিনিট ষাট সেকেন্ড। সুতবাং, সাতটা বাজে অনুষ্ঠান ওপেনিং কথার অর্থ হচ্ছে সকাল ছয়টা বেজে ঊনষাট মিনিট ষাট সেকেন্ড-এর পূর্বে দপ্তরে এসে উপস্থিত হওয়া। তিনি এটি বুঝেন এবং মেনে চলেন।

ঘ) একজন ভাল উপস্থাপক সবসময়ই নিজের কাজের মানের আরো উন্নয়নে সচেষ্ঠ থাকেন। আত্মতৃপ্তি শিল্পীর সত্বাকে মেরে ফেলে। ভালর শেষ নেই জেনেও, একজন ভাল উপস্থাপক শেষ ভালর জন্য অদম্য পরিশ্রম করে থাকেন।

বেতার উপস্থাপনার টুকিটাকি নিয়ে ভবিষ্যতে আরও আলোচনা হবে। তবে, এই মুগুর্তে বেতার উপস্থাপনা বিষয়ে  এফ এম ৮৮.৮  মেগা হার্জে আমাদের উপস্থাপকবৃন্দ কি ভাবছেন, সেটি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি!


-আহসান হাবীব, ট্রাফিক সম্প্রচার কার্যক্রম, বাংলাদেশ বেতার। ৩১ জুলাই ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ, আগারগাঁও, ঢাকা। https://facebook.com/trafficfm88.8/

Print Friendly

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copyright © 2019 | Traffic FM Privacy Policy | Maintained By Director (Traffic) | Supervised By DDG(Programme), Bangladesh Betar | Developed By SA Web Service